আমার ফেসবুকের লেখাগুলো – My facebook Writings

সুভুতি ভান্তের কথা

সুভুতি ভান্তে একজন আমেরিকান ভিক্ষু। তার সাথে আমার ব্যক্তিগত পরিচয় নেই। তবে আমার পরিচিত ভান্তেদের কাছে শুনেছি তিনি নাকি কট্টর বিনয় পালনকারী। তিনি যেখানে থাকেন তার আশেপাশে যেন পরিবেশটা অন্যরকম হয়ে ওঠে। তিনি সাধারণত পিণ্ডচারণ করে থাকেন। হাওয়াই দ্বীপে অবস্থানকালেও তার অন্যথা হয় নি। কিন্তু আমেরিকার আইন অন্যরকম। সেখানে বৌদ্ধ ভিক্ষু দুর্লভ। আর ঘরে ঘরে পিণ্ডচারণ তো আরো দুর্লভ। আপনি অপরিচিত লোক হয়ে সেখানে কারো ঘরের সামনে সন্দেহজনকভাবে দাঁড়াতে দেখলেই পুলিশে ফোন করে দেবে। গুলি করাটাও বিচিত্র নয়। তাই তিনি দাঁড়ান রাস্তায়, লোকজনের ঘরের দিকে মুখ করে।

তখন নাকি একজন এসে সোজা বলেছিল, আমরা খ্রিস্টান। অর্থাৎ একদম বিদ্বেষমূলক মনোভাব। কিন্তু সুভুতি ভান্তে মৈত্রী চর্চাকারী। তিনি বললেন, ঠিক আছে, ভিক্ষা দেবেন না ভালো কথা, কিন্তু আমি যদি এখানে দাঁড়িয়ে আপনার বাড়ির প্রতি মৈত্রী কামনা করে দিই, তাহলে আপনার কোনো আপত্তি আছে কি?

লোকটি বলেছিল, ঐ রাস্তায় দাঁড়িয়ে যা খুশি করুন, তাতে আমার কিচ্ছু আসে যায় না। আমার বাড়ির ত্রিসীমানায় না আসলেই হবে।

আরেক বাড়ির সামনে দাঁড়িয়ে নিরবে মৈত্রী কামনা করছিলেন তিনি। এসময় বাড়ি থেকে এক লোক বেরিয়ে এসে তার সামনে দাঁড়াল। তারপর দুহাত মেলে দিয়ে চোখ বন্ধ করে তার আশীর্বাদ গ্রহণ করল। এরপর বাড়িতে ঢুকে গেল। সুভুতি ভান্তে ভেবেছিলেন লোকটি বুঝি এবার কোনো খাদ্য দান করবে। কিন্তু লোকটি আর বেরিয়ে আসে নি। কী লজ্জার কথা!

আমি তো সংক্ষেপে বললাম। বিস্তারিত পড়ে দেখুন নিচের লিংকে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *