আমার ফেসবুকের লেখাগুলো – My facebook Writings

ধর্মের নামে বিজনেস

ধর্মের নামে সবখানে চলে বিজনেস। চীবর লাগবে, খাতা কলম লাগবে। ভান্তের কাছে যাও। ভান্তের কাছ থেকে কিনে নাও অল্প দামে। কিনে নিয়ে সেগুলো আবার ভান্তেকেই দান কর। দায়কেরও পুণ্য হলো, ভান্তেরও বসে বসে ভালো উপার্জন হলো।

ভান্তে লাভ করুক, দায়কের পুণ্য হোক, ব্যক্তিগতভাবে তাতে আমি কিছু মনে করি না। কিন্তু ভান্তের হাত ধরে ধর্মের নামে যে অধর্ম হয় তাতে আমি খুব মর্মাহত হই। ভান্তে যে বেচাকেনার দুষ্টচক্রে ঢুকে গেল, সে আর সেখান থেকে বেরোতে পারে না। যে শীল হচ্ছে একজন ভান্তের সবচেয়ে মূল্যবান সম্পত্তি, তার থেকেও বড় সম্পত্তি হয়ে দাঁড়ায় তখন সেই কেনাবেচা করে পাওয়া পার্থিব জিনিসপত্রগুলো। সেগুলোকেই সেই ভান্তে তখন বড় কিছু মনে করে। তার ভিক্ষুজীবনের ধ্যানজ্ঞান হয়ে দাঁড়ায় কীভাবে সে আরো লাভ করবে। ধর্মের এর থেকে বড় অধঃপতন আর কী হতে পারে?

থাইল্যাণ্ড, মায়ানমার, শ্রীলঙ্কা হচ্ছে থেরবাদী বৌদ্ধদেশ। সেগুলোতেই এই অবস্থা। মহাযানীদের কথা আর না-ই বা বললাম। ভিক্ষুদের শীলের এমন দুর্দশা। বৌদ্ধ তরুণ সমাজ কি এসব দেখে না?

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *