আমার ফেসবুকের লেখাগুলো – My facebook Writings

বৌদ্ধ টিপস: ঘুম তাড়াবেন যেভাবে

ঘুম ঘুম ভাব কাটানো কতটা কষ্টের তা হয়তো অনেকেই জানেন। মোগ্গল্লায়ন ভান্তেও একবার বসে বসে এভাবে ঘুমে ঢুলছিলেন। বুদ্ধ তখন তার সামনে হাজির হয়ে বললেন, বসে বসে ঝিমাচ্ছ, মোগ্গল্লায়ন?

– হ্যাঁ, ভান্তে।

তাহলে যে বিষয়ে মনোযোগ দিলে ঝিমুনি চলে আসে, সেই বিষয়ে মনোযোগ দেবে না। তখন হয়তো সেই ঝিমুনি চলে যাবে।

তাতেও কাজ না হলে ধর্মের যে যে বিষয়গুলো শিক্ষা করেছ, মুখস্থ করেছ সেগুলো মনে মনে বিশ্লেষণ করবে।

তাতেও কাজ না হলে ধর্মের যে যে বিষয়গুলো শিক্ষা করেছ, মুখস্থ করেছ সেগুলো আবৃত্তি করবে।

তাতেও কাজ না হলে কান দুটো ধরে টানবে। হাত দিয়ে গা মালিশ করবে।তাতেও কাজ না হলে উঠে গিয়ে চোখগুলো পানি দিয়ে মুছে চারদিকে তাকাবে। আকাশের তারা নক্ষত্র দেখবে।

তাতেও কাজ না হলে আলোর দিকে তাকিয়ে থাকবে। মনকে আলো দিয়ে আলোকিত করে রাখবে যেন চারদিকে আলো ঝলমলে দিন।

তাতেও কাজ না হলে মনোযোগ দিয়ে পা ফেলে ফেলে পায়চারি করবে।

তাতেও কাজ না হলে শেষমেষ ডানদিকে কাত হয়ে শুয়ে পড়বে। আবার ঘুম থেকে জাগা মাত্রই তাড়াতাড়ি উঠে পড়বে। বিছানায় গড়াগড়ি দিয়ে থাকার সুখে, ঘুমের সুখে ডুবে থাকবে না। এভাবেই হে মোগ্গল্লায়ন, তোমার শিক্ষা করা কর্তব্য।

অতএব কাজের সময়ে আপনার যদি ঝিমুনি আসে, তাহলে এভাবেই বুদ্ধের উপদেশ মেনে ঘুম তাড়াতে পারেন।

রেফারেন্স:

অঙ্গুত্তর নিকায=> সত্তকনিপাতপাল়ি => ৬. অব্যাকতৰগ্গো => ৮. পচলাযমানসুত্তং

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *