আমার ফেসবুকের লেখাগুলো – My facebook Writings

সাধুবাদ কখন দিতে হয়?

একজন আজকে কমেন্টস করে জানতে চাইল কখন সাধুবাদ দিতে হয়। আমি ভাবলাম কমেন্টসের জবাব বরং পোস্টে লিখলেই ভালো হবে। তাই সেব্যাপারে একটু লিখতে বসলাম। সাধুবাদ মানে হচ্ছে ভালো কথা বা কাজকে অনুমোদন করা, সমর্থন করা। এটা দশ প্রকার কুশল কর্মের অন্যতম। অন্যের যেকোনো কথায় বা কাজে যদি আপনি সাধুবাদযোগ্য বলে মনে করেন তাহলে সাধুবাদ দিতে […]

বৌদ্ধধর্মে দশপ্রকার পুণ্যকর্ম

বৌদ্ধধর্মমতে, নির্বাণ লাভ না করা পর্যন্ত সবারই পুণ্যকর্ম করা দরকার। ধর্মপদে বুদ্ধ বলেছেন, কেউ যদি পুণ্যকর্ম করে তাহলে সেটা যেন সে বারবার করে, তা যেন সে সবসময় আকাঙ্খা করে, কারণ পুণ্যসঞ্চয় হচ্ছে সুখদায়ক (ধম্মপদ-১১৮)। কিন্তু কোন কোন কাজগুলো পুণ্যকর্ম হিসেবে গণ্য হয়? অভিধর্মপিটকের ধর্মসঙ্গণি অর্থকথামতে সেগুলো হচ্ছে দশ প্রকার কাজ, যেমন- দানজনিত পুণ্যকর্ম, শীলজনিত পুণ্যকর্ম, […]

বৌদ্ধধর্মে পাপ-পুণ্য এলো কোত্থেকে?

ধর্মপদের দুটো গাথা আমার খুব প্রিয়। এখন তো মায়ানমারে এসে আমার কোনো ধর্মদেশনা দিতে হয় না। কিন্তু বাংলাদেশে থাকতে যেখানেই যেতাম আমাকে মাইক্রোফোন হাতে নিতে হতো। ধর্মদেশনা দিতে দিতে জীবন অতিষ্ঠ হয়ে উঠেছিল। আমি নিজেই বুঝি না, অন্যকে বুঝাবো কী? প্রায় সময়ই এরকম হয়, অতর্কিতে একটা অনুষ্ঠানে যেতে হলো। ধর্মদেশনার পালা পড়লো আমার ভাগে। কিছুই […]