আমার ফেসবুকের লেখাগুলো – My facebook Writings

বৌদ্ধমতে আয় বুঝে ব্যয় করবেন যেভাবে

কিছুদিন আগে আমি লিখেছিলাম কীভাবে বৌদ্ধমতে সুখী জীবন যাপন করা যায়। কী কী করতে হবে মনে আছে তো? প্রথমত, আপনার নিজ পেশায় বা কাজে দক্ষ হতে হবে, ধনসম্পত্তির যথাযথভাবে রক্ষণাবেক্ষণ করতে হবে, উন্নতিশীল সৎ জ্ঞানী ব্যক্তিদের সাথে ভালো বন্ধুত্ব রাখতে হবে, এবং আয় বুঝে ব্যয় করে চলতে হবে। প্রথম তিনটা বিষয়ে সেখানে আমি বেশ বিস্তারিত […]

গৃহীরা জীবনে সুখী হবেন যেভাবে

আমি সবসময়ই বলেছি, গৃহীদের সুখের জন্য দুটো জিনিস দরকার। সেগুলো হচ্ছে টাকা-পয়সা এবং পুণ্য। আমার চাকরিকালীন সময়ে টাকা-পয়সা কীভাবে আয় করব, কতটুকু জমা করব, কতটুকু দান করব, কতটুকু ব্যয় করব সেসব বিষয়ে একদম অজ্ঞ ছিলাম। এখন ভাবি, এই বিষয়গুলো জানা থাকলে তখন বোধহয় এত দিশেহারা হতে হতো না। আসুন দেখি ত্রিপিটকে কী বলা আছে এব্যাপারে। […]

প্রকৃত উপাসক উপাসিকা কারা?

বর্তমানে অনেকেই প্রশ্ন করে, প্রকৃত উপাসক উপাসিকা কাদেরকে বলা যাবে? বুদ্ধ অঙ্গুত্তর নিকায়ের চণ্ডাল সুত্রে (অঙ্গুত্তর নিকায়.৫.১৭৫) বলেছেন, যে শ্রদ্ধাহীন হয়, দুঃশীল হয়, মিথ্যাবিষয়ে কৌতুহলী হয়, কুশলকর্মের দিকে খেয়াল না করে মঙ্গল নিয়ে কৌতুহলী হয় (অর্থাৎ মঙ্গলসুত্রের আটত্রিশ প্রকার মঙ্গলের দিকে মন না দিয়ে সাধারণ লোকজনের মতোই সেও ভাবে, গরু দেখলে মঙ্গল, কাক দেখলে অমঙ্গল, […]

উপাসকের পেশা কেমন হওয়া উচিত?

ত্রিরত্নের উপাসক বা উপাসিকা হলে তার মিথ্যাবাণিজ্য ত্যাগ করা উচিত। বুদ্ধ বলেছেন, ভিক্ষুগণ, উপাসকের পাঁচ প্রকার বাণিজ্য করা উচিত নয়। অস্ত্রবাণিজ্য, প্রাণিবাণিজ্য, মাংসবাণিজ্য, মদবাণিজ্য, বিষবাণিজ্য (অঙ্গুত্তর নিকায়.৫.১৭৭)। এখানে অস্ত্রবাণিজ্য মানে হচ্ছে অস্ত্রশস্ত্র বিক্রি করা। প্রাণিবাণিজ্য মানে হচ্ছে মানুষ বিক্রি করা। মাংসবাণিজ্য মানে হচ্ছে শুয়োর, হরিণ ইত্যাদি বিভিন্ন গৃহপালিত প্রাণি পালন করে বিক্রি করা। সেগুলোকে জবাই […]

দায়ক-দায়িকা ও উপাসক-উপাসিকার মধ্যে পার্থক্য কী?

সোজা কথায়, যারা ভিক্ষুকে বা সঙ্ঘকে চারিপ্রত্যয় বা নিত্যপ্রয়োজনীয় জিনিস দেয় তাকে বলা হয় দায়ক বা দায়িকা। আর যে ত্রিরত্নের উপাসনা করে সে হয় উপাসক বা উপাসিকা। বৌদ্ধপ্রধান দেশগুলোতে সাধারণত দায়ক দায়িকা ও উপাসক উপাসিকার মধ্যে কোনো পার্থক্য থাকে না। কারণ সেখানে যারা দায়ক দায়িকা হয় তারাই উপাসক উপাসিকা হয়। কাজেই সেখানে দুটোই একই জিনিস। […]

উপযুক্ত উপাসক/উপাসিকা কীভাবে হওয়া যায় (১ম পর্ব)

উপাসক কে? যে কোনো ত্রিশরণ গ্রহণকারী গৃহী হচ্ছে উপাসক। কারণ বুদ্ধ মহানাম শাক্যকে বলেছিলেন, হে মহানাম, যখন থেকে সে বুদ্ধের আশ্রয় গ্রহণ করে, ধর্মের আশ্রয় গ্রহণ করে, সঙ্ঘের আশ্রয় গ্রহণ করে, তখন থেকে সে উপাসক হয় (সংযুক্ত নিকায়.৫.১০৩৩)। কেন তাকে উপাসক বলা হয়? ত্রিরত্নের উপাসনা করে বলেই তাকে উপাসক বলা হয়। এভাবে ত্রিরত্নের উপাসক হলেও […]