আমার ফেসবুকের লেখাগুলো – My facebook Writings

অর্হতের দেহও পচে যায় – পুনরালোচনা

কিছুদিন আগে সর্বশেষ পচ্চেক বুদ্ধের ব্যাপারে লিখেছিলাম। সর্বশেষ পচ্চেকবুদ্ধ ছিলেন মাতঙ্গ পচ্চেকবুদ্ধ। সিদ্ধার্থের জন্মের পরে এই পচ্চেকবুদ্ধ যখন পরিনির্বাণের জন্য হিমালয়ের এক পর্বতে চলে গেলেন তিনি সেখানে দেখলেন আগে পরিনির্বাপিত হওয়া এক পচ্চেক বুদ্ধের হাড়গোড় পড়ে আছে। তিনি সেগুলো খাদে ফেলে দিলেন। এরপর পাথরের উপর বসে নিজেও পরিনির্বাপিত হলেন। (সুত্তনি.অ.৭৪) এখানে বিষয়টা একটু ভেবে দেখুন। […]

অর্হতের দেহ ফরমালিন দিয়ে রাখলে সমস্যা কোথায়?

বৌদ্ধদের প্রায় সবারই ধারণা, অর্হৎ হলে তার মৃতদেহ পঁচে না। মায়ানমারে এসেও সেটা অনেক ভান্তের কাছ থেকে শুনেছি। তখন প্রশ্ন ওঠে, আমাদের দেশে পূজ্য বনভান্তেকে অর্হৎ বলা হয়। তাহলে তার দেহকে কেন ওষুধ দিয়ে রাখা হলো? কেন ছয় মাস পরপর ওষুধ মেখে দিতে হয়? অতি উৎসাহী কেউ কেউ তো বনভান্তেকে বহু আগে থেকেই ফরমালিন অর্হৎ, […]

অর্হতের মৃতদেহ কি পচে যায়?

আগের একটা পোস্টে আমি লিখেছিলাম “পরিনির্বাণের আগে অধিষ্ঠান না করলে অর্হতের দেহ সাধারণ মৃতদেহের মতোই পচে গলে যায়।” তাতে দুএকজন প্রশ্ন তুলেছিল, অর্হতের দেহ তো বিশুদ্ধ, তাহলে তা পচে গলে যাবে কেন? প্রশ্নটায় শুরু থেকেই ধরে নেয়া হয়েছে অর্হতের দেহ বিশুদ্ধ। আমি ভাবি, সত্যিই কি তাই? অর্হতের চিত্ত বিশুদ্ধ, কিন্তু দেহ কীভাবে বিশুদ্ধ হয়? সব্বে […]