আমার ফেসবুকের লেখাগুলো – My facebook Writings

সুসিম সুত্র: অর্হৎ হলেই যে সবকিছু পারবে এমন নয়

মায়ানমারে বিদর্শন ভাবনা খুব জনপ্রিয়। সেই বিদর্শনেরও আবার নানা পদ্ধতি বের হয়েছে। মহাসি পদ্ধতি, মোগোক পদ্ধতি, সুনলুন পদ্ধতি, গোয়েঙ্কা পদ্ধতি, ইত্যাদি আরো কত কী আছে। এসব পদ্ধতিতে কেবল বিদর্শন ভাবনার উপরে জোর দেয়া হয়। আমার কেন জানি এসব বিদর্শন ভাবনাকেন্দ্রে যাওয়ার উৎসাহ জাগে না। কিন্তু একদিন আমাদের ডিপ্লোমা ক্লাসে এক সেয়ামা বা মহিলা শিক্ষক আমাদেরকে […]

অভিধর্ম এবং রাগ করার তিনটা গল্প

আমাদের অভিধর্মের ক্লাস করাচ্ছেন ড. ইন্দক ভান্তে। অভিধর্মার্থ সংগ্রহ বইটা পড়ানো শুরু করেছেন। আজকে পড়ালেন অকুশল চিত্তগুলোর ব্যাপারে। লোভ, দ্বেষ ও মোহমূলক চিত্তগুলো ব্যাখ্যা করে দিলেন। আপনাদের কাছে সেগুলো নিরস মনে হবে। তাই সেগুলো নিয়ে লিখব না। তবে দ্বেষমূলক চিত্তের আলোচনা করতে গিয়ে একটা বাস্তব উদাহরণ দিলেন। সেটা একটু বলি। মায়ানমারে গ্রামাঞ্চলে পুরুষেরা ক্ষেতখামারে কাজ […]

আমাদের প্রথম ডিপ্লোমা ক্লাস: সব্রহ্মক সুত্র

থেরবাদা ইউনিভার্সিটিতে আমাদের বৌদ্ধধর্মের উপরে ডিপ্লোমা ক্লাস শুরু হয়েছে। প্রথম ক্লাসটা ছিল সুত্রপিটক।  শুরুতেই একটা করে লেকচার শীট ধরিয়ে দেয়া হলো সবাইকে। দেখলাম সব্রহ্মক সুত্রের ছোট্ট এক পেজের  ইংরেজি অনুবাদ। এর আগে কখনো এই সুত্রের কথা শুনেছি বলে মনে পড়ে না। কৌতুহলী হয়ে একটু পড়ে দেখলাম। মাতাপিতাকে সেবাপূজা করার সুফলের কথা বর্ণনা করা হয়েছে সুত্রটিতে। […]

ব্রহ্মজাল সুত্রের সারসংক্ষেপ

পৃথিবীর বেশির ভাগ লোকজন আত্মা ও সৃষ্টিকর্তায় বিশ্বাস করে। বর্তমানে তিনটি প্রধান ধর্ম হচ্ছে খ্রিস্টান (২৪০ কোটি), ইসলাম (১৮০ কোটি) ও হিন্দু ধর্ম (১১৫ কোটি)। সবগুলোই আত্মা এবং সৃষ্টিকর্তায় বিশ্বাসী। তাহলে চিন্তা করুন তো, পৃথিবীর ৭২০ কোটি মানুষের মধ্যে ৫৩৫কোটি মানুষ বিশ্বাস করে আত্মা আছে এবং একজন সৃষ্টিকর্তা আছেন। এমনকি একবার কয়েকজন মধ্যবয়স্কা উপাসিকার কাছ […]

গাছের কি প্রাণ আছে?

জগদীশচন্দ্র বসু তো সেই ১৯০১ সালে প্রমাণ করে দিয়েছেন গাছের প্রাণ আছে। তাই শুধু বিজ্ঞানীরা নয়, আধুনিককালের লোকজনও এক কথায় বলে দেয়, গাছের প্রাণ আছে। বুদ্ধের আমলেও লোকজন এমন বিশ্বাস করত। কিন্তু বৌদ্ধধর্ম এব্যাপারে কী বলে? বুদ্ধের আমলে অনেক ভিক্ষু গাছ কেটে কুটির বানাচ্ছিল। এতে লোকজন নিন্দা করতে লাগল। এই ঘটনার প্রেক্ষিতে বুদ্ধ তখন ভিক্ষুদেরকে […]

গান নিয়ে কিছু কথা

ফেসবুকে লেখালেখির সুযোগ হচ্ছে না। চাকমা ডিকশনারির ওয়েবসাইটের কাজ নিয়েই কেটে যাচ্ছে দিন। কিন্তু মাইকে ইদানিং গান শুনতে পাচ্ছি। আশেপাশে প্রচুর বিহার। সেগুলোতে মনে হয় কঠিন চীবর দান হচ্ছে। তাই গান চলছে। টুংটাং টুংটাং করে বাজায় আর গান গায়। আমি সেগুলো বুঝি না। শুধু অবাক হয়ে ভাবি এসবের মানে কী? তবে আধুনিক বার্মিজ গানগুলো খুবই […]

বর্তমানের গাড়িটানা উৎসব এবং এর সম্ভাব্য উৎপত্তি

আপনারা হয়তো দেখেছেন, কোনো বিশিষ্ট বৌদ্ধ ভিক্ষু মারা গেলে তার অন্ত্যেষ্টিক্রিয়া উপলক্ষে গাড়িটানা নামের একটা অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। সেখানে ভিক্ষুটির মৃতদেহকে কাঁধে তুলে নিয়ে ঘুরিয়ে ঘুরিয়ে নাচ প্রদর্শন করা হয়। আমার কাছে বিষয়টা বরাবরই বিদঘুটে লেগেছে। একজন ভিক্ষুর মৃতদেহকে এভাবে ঘুরানোর কোনো মানে আছে? লোকজন কী যে করে আজকাল! কিন্তু ত্রিপিটক ঘাঁটতে ঘাঁটতে একটা […]

ভিক্ষু ও মেয়ে সম্পর্কিত দুটো গল্প

আমি ভিক্ষু। তাই আমার লেখায় ভিক্ষুদের নিয়ে গল্প থাকবেই। আসুন দুটো গল্প শুনি। প্রথমে মহাযানী গল্পটি বলা যাক। গল্পটি হচ্ছে এরকম – এক ভিক্ষু এক মেয়েকে বয়ে নিয়ে নদী পার করে দিল। আরেক ভিক্ষু তাকে বলল, কী ব্যাপার? তুমি তাকে বয়ে নিয়ে নদী পার করিয়ে দিলে? ভিক্ষুরা মেয়েদেরকে ধরতেও পারে না, বয়ে নেয়া তো দূরের […]

আপনারা কি জানেন সর্বশেষ পচ্চেকবুদ্ধ কে?

আপনারা হয়তো পচ্চেকবুদ্ধের নাম শুনেছেন। আপনারা হয়তো আরো শুনেছেন যে তারা বুদ্ধশূন্য কল্পে জন্মান। কিন্তু আপনারা কি জানেন এই তো আনুমানিক ২৬০০ বছর আগেও সর্বশেষ পচ্চেকবুদ্ধ হেঁটেছেন এই পৃথিবীর বুকে? আপনাদের কেমন লাগবে জানি না, তবে আমি সত্যিই অবাক হয়েছি। কখনো ভাবিনি পচ্চেকবুদ্ধগণ এই মাত্র ২৬০০ বছর আগেও পৃথিবীতে বেঁচেছিলেন। সুত্তনিপাত অর্থকথামতে, সর্বশেষ পচ্চেকবুদ্ধ ছিলেন […]

পরিবেশ পরিষ্কার রাখাটা হচ্ছে ভিক্ষুদের অবশ্য করণীয়

বিনয়পিটকের পরিবার গ্রন্থে ঝাড়ু দেয়ার পাঁচটি উপকারিতার কথা বলা হয়েছে – পরিচ্ছন্ন পরিবেশ দেখে নিজের মন প্রসন্ন হয়, অপরজনের মনও প্রসন্ন হয়, দেবতারা খুশি হয়, সুন্দর চেহারা হওয়ার মতো পুণ্যকর্ম সঞ্চিত হয়, এবং মরণের পরে সুগতি লাভ হয়, অর্থাৎ মানুষ বা দেবতা হিসেবে জন্ম লাভ করে। এর গুরুত্ব সম্পর্কে বুঝাতে গিয়ে অর্থকথায় সারিপুত্র ভান্তের একটা […]