আমার ফেসবুকের লেখাগুলো – My facebook Writings

২৫ প্রকার ভয়

ক্ষমাপ্রার্থনায় সাধারণত বলা হয়, তিরতনেসু কাযেন বাচায় মনসাপিচ পমাদেন কতং ভন্তে সব্বদোসং খমন্তু মে … ইত্যাদি। এর অর্থ হচ্ছে ত্রিরত্নের প্রতি দৈহিক, বাচনিক ও মানসিকভাবে কৃত আমার সকল দোষ ক্ষমা করুন, ভান্তে। এরপর প্রার্থনা করা হয়, ত্রিরত্নের প্রতি করজোড়ে বন্দনাজনিত কর্মের প্রভাবে সর্বদা অভ্যন্তরীণ ও বাহ্যিক ৯৬ প্রকার রোগ, ৩২ প্রকার দৈহিক শাস্তি, ২৫ প্রকার ভয়, ১৬ প্রকার উপদ্রব, ১০ প্রকার দণ্ড, ৮ প্রকার দোষ, ৫ প্রকার শত্রুতা, ৪ অপায়, ৩ কল্প নিঃশেষে বিনষ্ট হোক।

এই এটা থেকেই অনেকে জিজ্ঞেস করেছে, ৯৬ প্রকার রোগ কী কী? ৩২ প্রকার শাস্তি কী কী? ১৬ প্রকার উপদ্রব কী কী? ১০ প্রকার দণ্ড কী কী? ইত্যাদি ইত্যাদি। তাদের প্রশ্নগুলোর উত্তর খুঁজতে খুঁজতে আমি হয়রান হয়ে গেছি। অবশ্য তাতে লাভও হয়েছে। অনেক কিছু জানা হয়ে গেছে। সেটাই কয়েকটা পোস্টে লিখছি। আগের পোস্টে লিখেছিলাম ৩২ প্রকার শাস্তির ব্যাপারে। বুদ্ধের আমলে চোর ডাকাত ইত্যাদি অপরাধীদেরকে ধরে রাজার আদেশে এরকম শাস্তি দেয়া হতো। এবার এই পোস্টে লিখব ২৫ প্রকার ভয়ের ব্যাপারে। পঁচিশ প্রকার ভয়ের জন্য দেখতে হবে খুদ্দক নিকায়ের মহানির্দেশ গ্রন্থে (মহানি.১৫৮)।
ভযন্তি
1. জাতিভযং – জন্মকে ভয় করা
2. জরাভযং – বার্ধক্যকে ভয় করা
3. ব্যাধিভযং – ব্যাধিকে ভয় করা
4. মরণভযং – মরণকে ভয় করা
5. রাজভযং – রাজাকে ভয় করা
6. চোরভযং – চোরডাকাতকে ভয় করা
7. অগ্গিভযং – আগুনকে ভয় করা
8. উদকভযং – পানিকে ভয় করা
9. অত্তানুৰাদভযং – পাপকর্মকারীর নিজের বিবেকের দংশনকে ভয় করা
10. পরানুৰাদভযং – অপরজনের দোষারোপকে ভয় করা
11. দণ্ডভযং – বিচারে শাস্তি পাবে বলে ভয় করা, বিনয়শীল ভঙ্গজনিত শাস্তিকে ভয় করা
12. দুগ্গতিভযং – চারি অপায়ে উৎপন্ন হওয়াকে ভয় করা
13. ঊমিভযং – মহাসাগরে বিশাল ঢেউকে ভয় করা
14. কুম্ভিলভযং – কুমিরকে ভয় করা
15. আৰট্টভযং – পানির ঘুর্ণিকে ভয় করা
16. সুসুমারভযং – সুসুমার বা সুসুকা বলতে বুঝায় এক প্রকার হিংস্র মাছ। হাঙর জাতীয় মাছ হবে মনে হয়। পিরানহা মাছও হতে পারে। সেরকম মাছকে ভয় করা
17. আজীৰিকভযং – যেকোনো পেশাকে ভয় করা
18. অসিলোকভযং – লোকনিন্দাকে ভয় করা
19. পরিসসারজ্জভযং – লোকজনের মুখোমুখি হওয়াকে ভয় করা
20. মদনভযং – মাতাল হওয়াকে ভয় করা

এর পরবর্তী পাঁচটি হচ্ছে কেবল ভয়ের স্বভাব মাত্র। যেমন-
21. ভযানকং – ভয়ানক কোনো কিছু
22. ছম্ভিতত্তং – ভয়ে থরথর করে কাঁপা
23. লোমহংসো – ভয়ে গায়ের লোম খাড়া হয়ে ওঠা
24. চেতসো উব্বেগো – মনে ভয় জাগা
25. উত্রাসো – ভয়ে মন চঞ্চল হয়ে ওঠা।

এই হচ্ছে ২৫ প্রকার ভয়। দায়ক দায়িকারা ক্ষমা প্রার্থনা করে বটে, কিন্তু বেশিরভাগই হয়তো জানে না তারা কোন কোন ভয় থেকে দূরে থাকার প্রার্থনা করে। এটা আশা করি তাদের অজ্ঞানতাকে দূরীভূত করতে সাহায্য করবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *